টিকিট বিক্রয়ে অতিরিক্ত অর্থ গ্রহণ ও অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ

৯৬

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর আউট ডোরে টিকিট বিক্রিয়ে অনিয়ম-দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ উঠেছে। ভুক্তভোগীদের অভিযোগে জানা যায়, শ্যামনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আউট ডোরে টিকিট বিক্রেতা মনি নামের এক যুবক রোগীদের সাথে সবসময় অসদাচারণ করে। টিকিট চাইলে ৫ টাকার স্থলে তাকে ১০/১৫ টাকা না দিলে টিকিট দিচ্ছে না। প্রতিদিন ৪/৫শ রোগীকে টিকিট দিয়ে অন্তত ২ হাজার টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে সে। এছাড়া হাসপাতালের ঔষধ টাকা দিলেই সে বিক্রি ও করছে এমন অভিযোগ রয়েছে। হাওয়াল ভাঙ্গী থেকে আউট ডোরে রোগী দেখাতে আসা সাহাদাত জানান, আমি ২ রোগীর জন্য ২টা টিকিট নিতে এসেছি সে আমার কাছে ২০টাকা দাবী করে আমি ২টা টিকিটের জন্য ১০ টাকা দিতে গেলে সে টাকা ছুড়ে দিয়ে টিকিট হবে না বলে জানিয়ে দেয়। মুন্সীগঞ্জ থেকে আসা কফিল উদ্দীন জানান, আমি ১টা টিকিট ১৫ টাকায় নিয়ে ডাক্তার দেখালাম।

বংশীপুর থেকে আউট ডোরে ডাক্তার দেখাতে আসা ইব্রাহিম জানান, আমি লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় আরেক ব্যাক্তিকে পিছন থেকে ডেকে নিয়ে তাদের নিকট থেকে টিকিট প্রতি ২০ টাকা করে নিয়েছে। আমি ৫ টাকা দিতে গেলে সে তা না নিয়ে আমাকে কটু ভাষায় কথা বললে আমি টিকিট না নিয়ে ফিরে আসি। এব্যাপারে টিকিট বিক্রেতা মনির সাথে কথা বলেল সে অস্বীকার করে বলেন, মাঝে মাঝে ২/১ জনের নিকট থেকে ২/৫ টাকা বেশি নিই। হাসপাতালে তো খরচ রয়েছে। এব্যাপারে কর্তব্যে রত এক ডাক্তারের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, টিএইচ এ স্যারের সাথে কথা বলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

- Advertisement -

এই বিভাগের আরও সংবাদ