পরিচালনার পাশাপাশি সিনেমাটোগ্রাফিতেও দক্ষতার পরিচয় দিয়ে চলেছেন রাকীব

১৯১

আব্দুর রাকীব হায়দারের বাড়ি সাতক্ষীরা জেলার সদর উপজেলার কাশেমপুর গ্রামে। তার পিতার নাম সিরাজুল ইসলাম ও মাতার নাম ছায়রা খাতুন। তিনি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগ হতে স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করে বর্তমানে পেশা হিসেবে টিভি নাটক, শর্ট ফিল্ম, বিজ্ঞাপন ও বিভিন্ন ধরণের তথ্যচিত্র বা প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণে নির্দেশনার পাশাপাশি সিনেমাটোগ্রাফার ও স্টিল ফটোগ্রাফার হিসেবেও সুনামের সাথে কাজ করে চলেছেন। সাতক্ষীরা জেলার কৃতি সন্তান বিশিষ্ট টিভি নাট্যনির্মাতা ও অভিনেতা জি এম সৈকতের সহকারী পরিচালক হিসেবে ২০১৩ সালের শেষের দিকে টেলিভিশন মিডিয়াতে কাজ শুরু করেন রাকীব এবং ২০১৬ সালে একটি বেসরকারি টেলিভিশনে প্রচারিত ও জি এম সৈকতের পরিচালিত একটি ধারাবাহিক নাটেকের পর্ব পরিচালক হিসেবে তার স্বপ্নের ক্যারিয়ারের পূর্ণাঙ্গ যাত্রা শুরু হয়। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন- “জি এম সৈকত স্যার তার একান্ত স্বদিচ্ছা ও ভালবাসায় পরিচালনা ও সিনেমাটোগ্রাফি বিষয়ে প্রয়োজনীয় খুঁটিনাটি বিষয়ে আমাকে দীক্ষা দিয়ে মিডিয়াতে আমাকে প্রতিষ্ঠিত করার অসামান্য উদারতা প্রকাশ করেছেন, এজন্য স্যারের প্রতি আমি চির কৃতজ্ঞ, তার এ ঋণ কখনো শোধ হবার নয়”। মিডিয়াতে নিজের স্বপ্ন বা লক্ষ্য নিয়ে তিনি বলেন- “সিনেমা হলো বৃহৎ একটি প্ল্যাটফর্ম, সবার মত আমিও স্বপ্ন দেখি সেটি নিয়ে। যদিও এটি একটি সময় সাপেক্ষ ও দুরূহ কাজ তবুও আমি স্বপ্ন দেখি একদিন সিনেমার নির্দশনা দেব এবং নিয়মিত প্রযোজনা করারও সুযোগ পাব”। গুরু জি এম সৈকত ও সকল শিক্ষক ও শোভাকাঙ্খীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে তিনি দেশবাসীর নিকট আশীর্বাদ ও দোয়া প্রার্থনা করেন।

এই বিভাগের আরও সংবাদ