বিশ্ববিদ্যালয়ে ই-নথি ব্যবস্থা জোরদারের আহ্বান ইউজিসির

৭৫

বিশ্ববিদ্যালয়ে দাপ্তরিক কাজে গতি বাড়ানো, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করার জন্য ই-নথি ব্যবস্থা জোরদারের আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।গতকাল শনিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেরিটাইম ইউনিভার্সিটির আয়োজিত ই-নথিবিষয়ক তিন দিনব্যাপী প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইউজিসি চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত দায়িত্ব) প্রফেসর ড. দিল আফরোজা বেগম এ আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ই-নথি ব্যবস্থার মাধ্যমে যে কোনো স্থান থেকেই ইন্টারনেটের মাধ্যমে নথি নিষ্পন্ন করা যাচ্ছে। এতে দাপ্তরিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত হচ্ছে। ইউজিসি চেয়ারম্যান সহজে ও দ্রুততম সময়ে প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ই-নথি কার্যক্রম বাস্তবায়নের উদ্যোগ জোরদারের ওপর গুরুত্বারোপ করেন। মেরিটাইম বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার কমডোর শেখ ফিরোজ আহমেদের সভাপতিত্বে প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- ইউজিসি সদস্য প্রফেসর ড. মো. সাজ্জাদ হোসন, মেরিটাইম ইউনিভার্সিটির উপাচার্য রিয়ার এডমিরাল এম খালেদ ইকবাল (অব) ও ইউজিসি সচিব ড. ফেরদৌস জামান। অনুষ্ঠানে প্রফেসর সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ই-নথি ব্যবস্থা কার্যকর করতে সরকার এরইমধ্যে প্রয়োজনীয় প্রযুক্তিগত অবকাঠামো গড়ে তুলেছে। এসব অবকাঠামোর যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে কাগজের ফাইলের ওপর নির্ভরতা কমিয়ে আনতে হবে। এ ব্যবস্থায় নথি সংক্রান্ত সব তথ্য যথাযথভাবে সংরক্ষিত থাকে বিধায় দ্রুততম সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া যায়। ড. ফেরদৌস জামান বলেন, ডিজিটালাইজেশনের সুযোগ নিয়ে সেবাদান প্রক্রিয়াকে সহজতর করতে হবে। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ই-নথি প্রশিক্ষণের আওতায় আনতে মাস্টার ট্রেইনার গড়ে তোলার ওপর জোর দেন। তিনদিনের প্রশিক্ষণে ভার্চুয়াল অফিস ম্যানেজমেন্ট, ই-নথি সিস্টেম, প্রোফাইল ব্যবস্থাপনা, ডাক আপলোড প্রক্রিয়া, ডাক ব্যবস্থাপনা, ডাক নথিতে উপস্থাপন পদ্ধতি, নথি ও পত্রজারি, নথি ব্যবস্থাপনা ও নথি মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা হবে। প্রশিক্ষণে সেশন পরিচালনা করবেন ইউজিসির আইএমসিটি বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ মাকছুদুর রহমান ভূঁইয়া, একই বিভাগের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ মনির উল্লাহ এবং প্রোগ্রামার দ্বিজন্দ্র চন্দ্র দাস। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগের চেয়ারম্যান, আইসিটি সেলের পরিচালকসহ ইউজিসি এবং বিশ্ববিদ্যালয়টির সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরও সংবাদ