সংরক্ষিত নারী সদস্য প্রার্থী হিসেবে লড়বেন ফাতেমা খাতুন রিক্তা

৯৫

সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩নং সংরক্ষিত ওয়ার্ডের নারী সদস্য প্রার্থী হিসেবে লড়বেন মোছা. ফাতেমা খাতুন রিক্তা। তিনি কালিগঞ্জ উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি এবং ব্যবসায়ী। ইতোমধ্যে তিনি সকলের দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করে নির্বাচনী প্রচারণা ও ভোটারদের সাথে মতবিনিময় সভা করছেন। এলাকার উন্নয়নে ইশতেহার ঘোষনা করবেন এবং শতভাগ ইশতেহার অনুযায়ী কার্য পরিচালনা করবেন বলে জানিয়েছেন।

আগামী ১৭ অক্টোবর ২০২২ দেশের ৬১টি জেলা পরিষদে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। জানা যায়, গত ২৩ আগস্ট ভোলা জেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ। ঘোষিত ওই তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ১৫ সেপ্টেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাই ১৮ সেপ্টেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের বিরুদ্ধে আপিল দায়েরের সময় ১৯ থেকে ২১ সেপ্টেম্বর, আপিল নিষ্পত্তি ২২ থেকে ২৪ সেপ্টেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৫ সেপ্টেম্বর ও প্রতীক বরাদ্দ ২৬ সেপ্টেম্বর। আর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ১৭ অক্টোবর। তফসিল ঘোষণার পর থেকে ইতোমধ্যে বিভিন্ন পদে নিজেদের প্রার্থীতা জানান দিচ্ছেন অনেকে। এরই ধারাবাহিকতায় জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে নিজের প্রার্থীতার কথা জানিয়েছেন ফাতেমা খাতুন রিক্তা।
সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩নং সংরক্ষিত ওয়ার্ড (কালিগঞ্জ, শ্যামনগর ও আশাশুনি’র শোভনালী এবং শ্রীউলা ইউনিয়ন)’র নারী সদস্য পদপ্রার্থী মোছা. ফাতেমা খাতুন রিক্তা বলেন, ‘জেলা পরিষদ স্থানীয় সরকারের একটি সংবিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠান। আমি একজন সচেতন ও প্রগতিশীল ব্যাক্তি হিসেবে এই নির্বাচনে সময় উপযোগী ইশতেহার নিয়ে অংশ গ্রহণ করবো। আপনাদের সকলের দোয়া ও সহযোগিতায় আমি নির্বাচিত হতে পারলে শতভাগ ইশতেহার অনুযায়ী কার্য পরিচালনা করবো। তিনি বলেন, জেলা পরিষদ নির্বাচনে আমি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবো বলে আশা করছি। নির্বাচিত হওয়ার পর সকলের সঙ্গে সমন্বয় করে এলাকাবাসীর সেবায় সব সময় নিজেকে নিয়োজিত রাখবো ইনশাআল্লাহ।

- Advertisement -

এই বিভাগের আরও সংবাদ