একজন ভালো চিকিৎসক হয়ে মানুষের সেবা করবো: মেধা

নূর আলম: মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন আশাশুনি উপজেলার কুল্যা গ্রামের মোকলেছুর রহমানের একমাত্র কন্যা মানছুরা ইয়াসমিন মেধা। তার বাবা পেশায় একজন চাকুরিজীবী, মা মোছা. মুক্তা আক্তার স্কুলের একজন শিক্ষিকা। মানছুরা ইয়াসমিন মেধা প্রথমে সাতক্ষীরা কিন্টার গার্ডেন স্কুলে পড়াশুনা করতো। তৃতীয় শ্রেণিতে চান্স পেয়ে সাতক্ষীরা সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ে ভর্তি হয়। পঞ্চম এবং অষ্টম শ্রেণিতে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পায়। এস.এস.সি তে গোল্ডেন এ+ এবং বৃত্তি পায়। তারপর সাতক্ষীরা সরকারি কলেজে ভর্তি হয়ে এইস.এস.সি তে গোল্ডেন এ+ পায় এবং এখানেও বৃত্তিও পায়। তারপর খুলনা থেকে মেডিকেল কোচিং করে। ছোট বেলা থেকেই পড়াশোনায় ভালো ছিলো, তাই আমাদের সবার আশা ছিলো ও যেনো মেডিকেল পড়তে পারে। উল্লেখ্য যে, তার সফলতার পেছনে নানী এবং মায়ের অক্লান্ত পরিশ্রম আছে। মানছুরা ইয়াসমিন মেধা বলেন, আমার ইচ্ছা একজন ভালো চিকিৎসক হয়ে মানুষের সেবা করবো।

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করে অন্যদের পড়ার সুযোগ করে দিন।

খুলনার সময়

একটি সৃজনশীল সংবাদপত্র

আমাদের ফেসবুক পেজ

আজকের দিন-তারিখ

  • বুধবার ,দুপুর ১:১৬
  • ২২ মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  • ১৪ জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন