পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডে এমপি রবির ঈগল প্রতীকের নির্বাচনী সভা

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে সাতক্ষীরা ২ আসনের স্বতন্ত্র পদপ্রার্থী বারবার নির্বাচিত সাংসদ সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি নৌ-কমান্ডো ০০০১ বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবির ঈগল প্রতীকের নির্বাচনী পথসভা জনসভায় পরিণত হয়েছে। শনিবার (২৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় শহরের আমতলা মোড়ে পৌর ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আয়োজনে ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে নির্বাচনী পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা-২ আসনের ঈগল প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি। প্রধান অতিথির বক্তব্য এমপি রবি বলেন,“জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে দুইবার নৌকা প্রতীক দিয়েছেন। আমি এমপি হয়ে সাতক্ষীরার উন্নয়ন ও আপনাদের সেবা করেছি। এবার সাতক্ষীরা-২ আসনে নৌকা নেই। আমি স্বতন্ত্র হয়ে ঈগল প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছি। আমি একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসাবে বয়সের শেষ প্রান্তে একটি দাবী আগামী ৭ জানুয়ারি আপনারা স্বতঃস্ফুর্তভাবে ভোট কেন্দ্রে যাবেন এবং আমার ঈগল প্রতীকে ভোট দেবেন। দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা ধরে রাখতে আর একটিবার আমাকে ভোট দিন। দেশের শান্তি ও উন্নয়নের স্বার্থে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ৫ম বারের মতো প্রধানমন্ত্রী করবেন ইনশাল্লাহ।” নির্বাচনী পথসভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী আকতার হোসেন, সাতক্ষীরা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসেরুল হক, সাতক্ষীরা জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জ্যোৎস্না আরা প্রমুখ।
জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী আকতার বলেন, “জননেত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি নির্বাচনী জনসভায় বলেছেন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উন্মুক্ত করে দিয়েছেন। প্রার্থীদেরকে ভোটে প্রতিযোগিতা করে বিজয়ী হয়ে আসতে হবে। তিনি আরো বলেন, সাতক্ষীরা-২আসনে নৌকা নেই। রবি ভাই জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি। তারা বুঝতে পেরেছে রবি ভাই জয়লাভ করলে তাদের ভাত নেই। তারা গভীর ষড়যন্ত্রে নেমেছে। আমাদের দলের অতি-উৎসাহী নাঙ্গলের সমর্থক আওয়ামী লীগ নেতা মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে মহাজোটের প্রার্থী বলে নাঙ্গলের জন্য ভোট চাইছেন। জাতীয় পার্টিই বলছে তারা জোট মহাজোটের নয়। তারা বুঝতে পেরেছে রবি ভাই স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ঈগল প্রতীক নিয়ে বিপুল ভোটে জয়লাভ করবে। তারা দল ও সাতক্ষীরার ভালো চায়না। তাই ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। আর লাঙ্গলের প্রার্থী আমাদের রবিসহ দলের বিরুদ্ধে মিথ্যা কথা বলছে। ঈগল প্রতীকের প্রার্থী কারও বিরুদ্ধে সমালোচনা করছেনা। অথচ জাতীয় পার্টির লাঙ্গলের প্রার্থী মিথ্যা ও বানোয়াট বক্তব্য দিয়ে সমালোচনা করছেন। তাদের মিথ্যা পরিহার করার আহবান জানাচ্ছি।”
এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা জেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি মকসুমুল হাকিম, যুবনেতা মীর মহিতুল আলম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মীর তানজির আহমেদ, ইঞ্জিনিয়ার মীর ফাহমিদ আহমেদ তারিন, পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর বিন সেলিম যাদু, জেলা মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি মীর আজহার আলী শাহিন, জেলা তাঁতী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আলমগীর হোসেন, জেলা শ্রমিক লীগের যুগ্ম আহবায়ক বিকাশ চন্দ্র দাস, পৌর আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ইকবাল হোসেন, ব্রহ্মরাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. আলাউদ্দিন ঢালী, পৌর ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মীর হাবিবুর রহমান বিটু, শহর কাচা ও পাকামাল ব্যবসায়ী সমিতির সাবেক সেক্রেটারি মো. আব্দুর রহিম বাবু, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুলেখা রানী দাস, দপ্তর সম্পাদক তহমিনা ইসলাম, পৌর ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসিফ ইকবাল তুহিন, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আক্তার হোসেন বাবু প্রমুখ। এসময় আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী ও সমর্থক এবং সাধারণ ভোটাররা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাতক্ষীরা পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. সাহাদাৎ হোসেন।

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করে অন্যদের পড়ার সুযোগ করে দিন।

খুলনার সময়

একটি সৃজনশীল সংবাদপত্র

আমাদের ফেসবুক পেজ

আজকের দিন-তারিখ

  • মঙ্গলবার ,রাত ১:০৭
  • ১৮ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ৪ আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  • ১২ জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন