প্রধানমন্ত্রীকে ইআইবি ও সিআইসিএর অভিনন্দন

প্রধানমন্ত্রী

খুলনার সময়: ইউরোপিয়ান ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংক (ইআইবি) এবং কনফারেন্স অন ইন্টারঅ্যাকশন অ্যান্ড কনফিডেন্স বিল্ডিং মেজারস ইন এশিয়া (সিআইসিএ) বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পুনরায় নির্বাচিত হওয়ায় শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়েছে। প্রধানমন্ত্রীকে লেখা এক বার্তায় ইআইবি প্রেসিডেন্ট নাদিয়া ক্যালভিনো বলেন, ‘ইউরোপীয় বিনিয়োগ ব্যাংকের এবং আমার নিজের পক্ষ থেকে আমি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পঞ্চম মেয়াদে নির্বাচিত হওয়ায় আপনাকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।’ তিনি বলেন, ‘ইআইবি, ইউরোপীয় ইউনিয়নের ব্যাংক হিসেবে বাংলাদেশের সরকার ও জনগণের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ককে লালন করে।’ ইআইবি প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘গত কয়েক বছরে অর্থনৈতিক ও সামাজিক খাতে আপনার দেশ দ্রুত এগিয়ে গেছে এবং আমাদের মধ্যে সম্পর্ককে ক্রমাগত জোরদার করতে ১ বিলিয়ন ইউরোর বিনিয়োগের সাথে এটি একটি বিশেষত্বের বিষয় এবং অব্যাহতভাবে জোরদার হতে দেখা যাছে।’ এই প্রসঙ্গে, তিনি উল্লেখ করেন, গ্রিন এনার্জি উৎপাদনের জন্য ইআইবি সম্প্রতি ব্রাসেলসে ৩৫০ মিলিয়ন ইউরোর একটি ফ্রেমওয়ার্ক ঋণের সাম্প্রতিক চুক্তি স্বাক্ষর, অভিন্ন জলবায়ু পদক্ষেপের উদ্দেশ্যগুলোর উপর ভিত্তি করে একটি ক্রমবর্ধমান অংশীদারিত্বের একটি উপযুক্ত উদাহরণ। এই ঋণ ইউরোপীয় ৪৫ মিলিয়ন ইউরো অনুদানের পরিপূরক।

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা ইইউ-বাংলাদেশের মধ্যে দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্কের ক্ষেত্রে আমাদের সমর্থন অব্যাহত রাখার অপেক্ষায় রয়েছি। আমরা নবায়নযোগ্য জ্বালানি কার্যক্রম বাস্তবায়নের ব্যাপারে এগিয়ে যাচ্ছি। রেলওয়ে ও পানি এবং স্যানিটেশনের মতো বিভিন্ন খাতে আমাদের বিদ্যমান সহযোগিতাকে আরও গভীর করার সুযোগগুলো খুঁজে বের করছি।’ সর্বশেষ নাদিয়া ক্যালভিনো বলেন, ‘সম্মানীয় প্রধানমন্ত্রী অনুগ্রহ করে আপনি আমার সর্বোচ্চ বিবেচনার আশ্বাস গ্রহণ করুন।’ অপর এক চিঠিতে, সিআইসিএ মহাসচিব কাইরাত সারিবে বলেছেন, ‘বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পুনরায় নির্বাচিত হওয়ায় আপনাকে অভিনন্দন জানাতে পেরে আমি অত্যন্ত আনন্দিত।’ তিনি উল্লেখ করেন, সিআইসিএর সক্রিয় সদস্য বাংলাদেশ সিআইসিএর সকল দেশের স্বার্থে ক্রমাগতভাবে সিআইসিএ প্রক্রিয়াকে সমর্থন করে এবং আস্থা তৈরির পদক্ষেপে অবদান রাখছে। তিনি আরও বলেন, ‘আমি আত্মবিশ্বাসী যে, বাংলাদেশ তার নিজস্ব জাতীয় ও আঞ্চলিক স্বার্থ এবং নীতির প্রচারের জন্য সিআইসিএর সম্ভাবনাকে কার্যকরভাবে কাজে লাগাবে।’

তিনি বলেন ‘কনভেনশন অন প্রিভিলেজেজ অ্যান্ড ইমিউনিটিজ অব সেক্রেটারিয়েট ২০১০ স্বাক্ষর এবং সমর্থন করায় আপনার সরকারের সিদ্ধান্তে আমি বিশেষভাবে কৃতজ্ঞ। যা একটি পূর্ণাঙ্গ আন্তর্জাতিক সংস্থায় সিআইসিএর চলমান রূপান্তরের মধ্যে উল্লেখযোগ্য এবং সময়োপযোগী অর্জন।’ সবশেষে মহাসচিব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য এবং এই সম্মানজনক ও গুরুত্বপূর্ণ পদের প্রতিটি ক্ষেত্রে পেশাগত সাফল্য কামনা করেন।

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করে অন্যদের পড়ার সুযোগ করে দিন।

ফেসবুক পেজ এ সব খবর

আজকের দিন-তারিখ

  • রবিবার ,সকাল ১০:২৮
  • ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ১২ ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  • ১৫ শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন



আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন