মৃত কর্মীর বেতন আত্মসাত, কেসিসির ৩ কর্মচারী চাকরিচ্যুত

খুলনা সিটি করপোরেশনের (কেসিসি) মৃত কর্মচারীর নামে বেতন উত্তোলনের অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় মাস্টাররোলের ৩ কর্মচারীকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার কেসিসির ভারপ্রাপ্ত সচিব সানজিদা বেগম তাদের চাকরিচ্যুতির অফিস আদেশ জারি করেন। কেসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা লস্কর তাজুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। চাকরিচ্যুত কর্মীরা হলেন লাইব্রেরিতে কর্মরত অফিস সহায়ক সাইফুল ইসলাম, কনজারভেন্সি বিভাগের রুবেল হোসেন ও যানবাহন শাখার শহিদুল ইসলাম। কেসিসি থেকে জানা গেছে, কেসিসিতে মাস্টাররোল কর্মচারী হিসেবে চাকরি করতেন শেখ ইব্রাহিম। ২০২০ সালের ৭ মে তিনি মারা যান। কিন্তু তার নামে নিয়মিতভাবে বেতন উত্তোলন হতে থাকে। চলতি বছর কেসিসির বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগে বেশকয়েকটি পদে রদবদল করা হয়। এরপর দেখা যায় ৩ মাস ইব্রাহিম বেতন নিতে আসেন না। তখন খোঁজ নিলে তার মৃত্যুর বিষয়টি প্রকাশ পায়। এনিয়ে তদন্ত কমিটির গঠন করা হয়।

কেসিসির ভারপ্রাপ্ত সচিব সানজিদা বেগম জানান, প্রায় সাড়ে ৩ বছর ধরে শেখ ইব্রাহিমের নামে বেতন উত্তোলন করে প্রায় ৬ লাখ ৭ হাজার টাকা আত্মাসাৎ করা হয়েছে। পরে সিটি মেয়রের নির্দেশে পুরো টাকা কেসিসির ফান্ডে জমা দেন অভিযুক্ত কর্মকর্তারা। টাকা কেসিসির ফান্ডে জমা দেওয়ার পর মাস্টাররোলের ৩ কর্মচারীকে চাকরিচ্যুতির অফিস আদেশ জারি করা হয়।

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করে অন্যদের পড়ার সুযোগ করে দিন।

খুলনার সময়

একটি সৃজনশীল সংবাদপত্র

আমাদের ফেসবুক পেজ

আজকের দিন-তারিখ

  • মঙ্গলবার ,রাত ১:৩৭
  • ২৫ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ১১ আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  • ১৯ জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন