রোজায় পানির তৃষ্ণা কমাবে যেসব খাবার

লাইফস্টাইল: কিছু খাবার রয়েছে, যা খেলে পানির তৃষ্ণা বেড়ে যায়। আবার এমন কিছু খাবার রয়েছে, যা খেলে পানির তৃষ্ণা কমানো সম্ভব। রোজা রেখে শরীরে পানির ঘাটতি তৈরি হওয়া স্বাভাবিক ঘটনা। ফলে পানির তৃষ্ণা হতেই পারে। তবে ইফতার ও সাহরিতে এমন কিছু খাবার রাখতে পারেন, যা শরীরের পানির ঘাটতি পূরণ করবে আবার তৃষ্ণাবোধও কমাবে। জেনে নিন সেসব খাবার সম্পর্কে-

পুষ্টিতে ভরপুর দই : খুব পুষ্টিকর আবার সহজলভ্য খাবার হচ্ছে দই। এককাপ দইয়ে শতকরা ৮৫ ভাগ পানি থাকে। এ ছাড়া দই দিয়ে আপনি স্মুদি, লাবাং বানাতে পারেন। দই পেট ভালো রাখতেও সাহায্য করে। দইয়ের সঙ্গে কিছু শুকনো ফল মিশিয়ে কিংবা দই-চিঁড়া খেয়ে নিতে পারেন ইফতার বা সাহরির সময়। এতে পেটও পুরবে আবার শরীরও ভালো থাকবে।
চা, কফি : শরীরকে চাঙ্গা রাখতে চা, কফির বিকল্প কমই আছে। ইফতারের পর কমবেশি সবাই চা বা কফি পান করে থাকি। কিন্তু ক্যাফেইন যেমন- চা, কফি শরীর থেকে ফ্লুইড বের করে দেয়। এর ফলে ঘন ঘন প্রস্রাব হয়। তবে যদি নিতান্তই চা, কফি পান করতেই হয়, সে ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ একবার পান করুন।
পানিযুক্ত ফল ও সবজি : খাদ্যতালিকায় পানি ও পানিযুক্ত খাবার বেশি রাখুন। যেসব সবজি ও ফলে পানির পরিমাণ বেশি যেমন- তরমুজ, টমেটো, লেটুসপাতা এগুলো খাবার প্লেটে রাখার চেষ্টা করুন। শরীর হাইড্রেটেড করার পাশাপাশি এগুলো পুষ্টিগুণে ভরপুর।
ঝাল ও লবণাক্ত খাবারকে না : মসলাযুক্ত খাবার, অতিরিক্ত লবণসমৃদ্ধ খাবার তৃষ্ণা বাড়িয়ে দেয়। সারা দিন রোজা রাখার পর ঝালজাতীয় খাবার খাওয়া সবার খুব পছন্দ। এ জাতীয় খাবারে পানির তৃষ্ণা বেড়ে যায়, সেই সঙ্গে খাবার হজমেও তৈরি হবে সমস্যা।

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করে অন্যদের পড়ার সুযোগ করে দিন।

আমাদের ফেসবুক পেজ

আজকের দিন-তারিখ

  • মঙ্গলবার ,রাত ১২:৫৪
  • ২৫ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ১১ আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  • ১৯ জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন