সাইবার আইন জনগণের মুক্তচিন্তার অধিকার বঞ্চিত করছে: জিএম কাদের

জিএম কাদের

খুলনার সময়: জাতীয় পার্টি (জাপা) চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেছেন, সরকার সাইবার আইন করে জনগণকে মুক্তচিন্তার অধিকার থেকে বঞ্চিত করছে। শুধু তাই নয়, সরকার দেশে একদলীয় শাসন ব্যবস্থার দিকে যাচ্ছে ও গণতন্ত্রকে হত্যা করছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে একটি কনভেনশন সেন্টারে চট্টগ্রাম মহানগর জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, এই সরকার জনগণের জবাবদিহিমূলক সকল প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করে ফেলেছে। যেকোনো ধরণের সমালোচনা করলে রাষ্ট্র বিরোধী কথা হলে সাইবার আইনে মামলা করা হচ্ছে। সমালোচনা নিতে না পেরে আইন দিয়ে মুখ বন্ধ করা হচ্ছে। সরকারের লুটপাটের কারণে দেশে রিজার্ভ সংকটে পড়েছে জানিয়ে জিএম কাদের বলেন, বাংলাদেশের রিজার্ভ খারাপের থেকে আরও খারাপের দিকে যাচ্ছে। দশ বিলিয়ন কম হলে কোন দেশের এলসি হবে না। দেশের ব্যাংকগুলো খালি করা হয়েছে। দুদক দিয়ে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের হয়রানি করা হচ্ছে। ছোট কর্মকর্তাদের দুদক দিয়ে হয়রানি করা হয়। কিন্তু বড় বড় দুর্নীতিবাজদের ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। দেশে প্রথম আওয়ামী লীগ দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ান হয়েছিল। পরে বিএনপি চারবার চ্যাম্পিয়ান হয়েছে। আওয়ামী লীগ ইশতেহারের ধারে কাছে যায়নি। সবক্ষেত্রেই আওয়ামী লীগ একটি সুবিধাবাদি দল তৈরি করেছে। জাতীয় পার্টি আওয়ামী লীগের বি টিম হতে রাজনীতি করেনি উল্লেখ করে জাপা চেয়ারম্যান বলেন, ১৯৯০ সালের পর থেকে যখনই যে ক্ষমতায় গেছে, জাতীয় পার্টিকে ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র করেছে। এই সরকারও জাতীয় পার্টিকে দুর্বল করার চেষ্টা করে যাচ্ছে। কিন্তু কেউই জনগণের হৃদয় থেকে জাতীয় পার্টিকে, লাঙ্গল প্রতীককে মুছে ফেলতে পারেনি। বরং আজকে সেই লাঙ্গল প্রতীক, জাতীয় পার্টি আরও উজ্জীবিত হয়েছে, আরও শক্তিশালী হয়েছে। ক্ষমতার জন্য জাতীয় পার্টি লড়াই করছে না। হয়তো ভবিষ্যতে জনগণের আশা পূরণ করতে পারি। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি, জাতীয় পার্টির মহাসচিব মো. মুজিবুল হক চুন্নু এমপি, কো-চেয়ারম্যান কাজী ফিরোজ রশীদ এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য জহুরুল ইসলাম জহির, প্রেসিডিয়াম সদস্য মোস্তফা আল মাহমুদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, প্রেসিডিয়াম সদস্য এসএম ফয়সল চিশতী ও এটিকিউ তাজ রহমান। এদিকে সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে জাতীয় পার্টি (জাপা) প্রেসিডিয়াম সদস্য সোলায়মান আলম শেঠকে পুনরায় মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি ও ইয়াকুব হোসেনকে সিনিয়র সহ সভাপতি এবং আবু জাফর মাহমুদ কামালকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে।

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করে অন্যদের পড়ার সুযোগ করে দিন।

খুলনার সময়

একটি সৃজনশীল সংবাদপত্র

ফেসবুক পেজ এ সব খবর

আজকের দিন-তারিখ

  • শনিবার ,সন্ধ্যা ৬:৩৩
  • ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ১১ ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  • ১৪ শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন



আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন