সাতক্ষীরায় জাতীয় পার্টির নির্বাচনী সভায় “বীর মুক্তিযোদ্ধা” এবং “নৌ কমান্ড ০০০১” নিয়েও অশোভন বক্তব্য

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রচারণায় সরগরম ভোটের মাঠ। সাতক্ষীরার চারটি আসনের মধ্যে তিনটিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী থাকলেও সাতক্ষীরা সদর আসনে আওয়ামী লীগের কোন প্রার্থী নেই। স্বতন্ত্রপ্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি বীর মুক্তিােদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি মনোনয়ন বঞ্চিত হয়েও নির্বাচন করছেন। ফলে, সাতক্ষীরা ২ আসনে বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবির ঈগল প্রতীকের সাথে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে জাতীয় পার্টির প্রার্থী আশরাফুজ্জামান আশুর লাঙ্গল প্রতীকের। জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আশরাফুজ্জামান আশু এবং টানা দুই বার নৌকা প্রকীত নিয়ে বিজয়ী এমপি মীর মোস্তাক আহমেদ রবি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রচার প্রচারণায় সরগরম করে রেখেছে রাজনীতির মাঠ। অপরদিকে আরো ৫ জন প্রার্থী বিজয়ের লক্ষে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে।
এদিকে, সাতক্ষীরার স্থানীয় পত্রিকাগুলোতে দেখা যাচ্ছে, সাতক্ষীরা ২ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী ঈগল প্রতীকের প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবিকে নিয়ে আক্রমণাত্বক ও উস্কানিমূলক বক্তব্য প্রদান করছে জাতীয় পার্টির সমর্থকেরা। ঈগল প্রতীকের কর্মী সমর্থকরা তা প্রতিহত না করে এ ধরনের গীবত না করার অনুরোধ জানিয়ে বক্তব্য দিচ্ছেন। জাতীয় পার্টির নির্বাচনী সভায় আওয়ামী লীগের কিছু নেতাকর্মী এমপি রবিকে নিয়ে অশ্রাব্য ভাষায় কটুক্তি করে বক্তব্য রাখছেন যা আচারণ লঙ্ঘনের সামিল। শুধু তাই নয়, জাতীয় পার্টির নির্বাচনী পথ সভায় বর্তমান এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবির “বীর মুক্তিযোদ্ধা” এবং “নৌ কমান্ড ০০০১” নিয়েও ‘অশোভন’ বক্তব্য রাখছেন বক্তারা।
প্রসঙ্গত, নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী ২০২৪ সালের ৭ জানুয়ারি ভোটের দিন। এ উপলক্ষে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত ভোটের প্রচারণা চালাতে পারবেন প্রার্থীরা। গত ১৮ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দের দিন থেকে সাতক্ষীরা ২ আসনে প্রচারণায় নামেন প্রার্থীরা।
এ বিষয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি বলেন, ‘নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে আমি ভোটারদের কাছে যাচ্ছি। আচরণবিধি যেন ক্ষুন্ন না হয়, সে বিষয়ে আমার কর্মী-সমর্থক নির্দেশনা দেওয়া আছে। আমি বিশ্বাস করি, বিগত ১০ বছরে আমি মানুষের কল্যাণে এবং সাতক্ষীরার উন্নয়নে যে কাজগুলো করেছি, সাধারণ ভোটাররা পুনরায় আমাকে নির্বাচিত করবে। কোন মিথ্যাচার বা কাল্পনিক কাহিনী শুনিয়ে মানুষের ভালোবাসা পাওয়া যাবে না। সাধারণ ভোটাররা স্বতঃস্ফূর্তভাবে আগামী ৭ জানুয়ারি আমার ঈগল প্রতীকে ভোট দিয়ে আমাকে বিজয়ী করবে।

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করে অন্যদের পড়ার সুযোগ করে দিন।

খুলনার সময়

একটি সৃজনশীল সংবাদপত্র

আমাদের ফেসবুক পেজ

আজকের দিন-তারিখ

  • মঙ্গলবার ,রাত ৯:১০
  • ১৬ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ১ শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  • ১০ মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন